FacebookMySpaceTwitterDiggDeliciousStumbleuponGoogle BookmarksRedditNewsvineTechnoratiLinkedinMixxRSS Feed

ইন্টেল প্রসেসরে ত্রুটির করণে বেশিরভাগ কম্পিউটার ঝুঁকিতে রয়েছে

ইন্টেল প্রসেসরে ত্রুটির করণে বেশিরভাগ কম্পিউটার ঝুঁকিতে রয়েছে ১০ বছরে নির্মিত ইন্টেল প্রসেসরে ত্রুটির খোঁজ পেয়েছেন নিরাপত্তা গবেষকরা। এ ত্রুটির ফলে বিশ্বব্যাপী কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা ঝুঁকি মধ্যে রয়েছে।

ইন্টেল প্রসেসরের ডিজাইনে এ ত্রুটি সর্বপ্রথম আবিষ্কার করে সংবাদমাধ্যম দ্য রেজিস্ট্রার। এতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইন্টেল প্রসেসরে এ নিরাপত্তা দুর্বলতা অননুমোদিত প্রোগ্রামকে কম্পিউটারের সুরক্ষিত কার্নেল মেমোরিতে প্রবেশের সুযোগ দিতে পারে।

এর মানে হচ্ছে, আপনি যখন উইন্ডোজ, লিনাক্স কিংবা ম্যাকওএস ব্যবহার করছেন তখন ব্রাউজারে জাভা স্ক্রিপ্টের মতো কিছু সহজেই আপনার কম্পিউটারের সেই জায়গায় প্রবেশ করতে পারে, যেখানে পাসওয়ার্ড সুরক্ষিত থাকে। অর্থাৎ হ্যাকাররা লগইন কি এবং পাসওয়ার্ড হাতিয়ে নিতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ইন্টেলের জন্য এটি বড় ধরনের মাথাব্যথার কারণ। কেননা গত ১০ বছরে নির্মিত ইন্টেল প্রসেসর ব্যবহৃত প্রত্যেকটি কম্পিউটারের জন্য নিরাপত্তা প্যাচ প্রয়োজন হবে।

দ্য রেজিস্ট্রার তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এই ত্রুটির সম্ভাব্য ঝুঁকি থেকে মুক্তি পেতে নিরাপত্তা প্যাঁচ ব্যবহার করা হলে তা কম্পিউটারের প্রসেসিং গতি ৫ থেকে ৩০ শতাংশ পর্যন্ত ধীরগতির করে দিতে পারে।

এই নিরাপত্তা দুর্বলতার বিষয়টির ব্যাপকতা ব্লুমবার্গের তথ্য থেকে অনুমেয়। সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, বিশ্বের প্রায় ৯০ শতাংশ সার্ভার এবং ল্যাপটপে ইন্টেলের প্রসেসর রয়েছে।

দ্য রেজিস্ট্রার তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ঝুঁকি এড়ানো যাবে নিরাপত্তা প্যাচ আসার পর অপারেটিং সিস্টেম আপডেট করে।

এদিকে ইন্টেল তাদের বিবৃতিতে জানিয়েছে, কেবল তাদের প্রসেসরই এ সমস্যাযুক্ত নয়। অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের প্রসেসরেও এ সমস্যা থাকার ইঙ্গিত দিয়েছে ইন্টেল।

ইন্টেলের বিবৃতিতে বলা হয়, সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা বাগ বা ত্রুটি কেবল ইন্টেলের পণ্যগুলোতে বিষয়টি আসলে ভুল। অন্যান্য প্রসেসর এবং অপারেটিং সিস্টেমগুলোতেও এ সমস্যা রয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটি সুসংবাদ হিসেবে জানিয়েছে, নিরাপত্তা প্যাচ কম্পিউটারের পারফরম্যান্স খুব বেশি ধীরগতির করবে না।

লিনাক্স এবং মাইক্রোসফট ইতোমধ্যেই নিরাপত্তা প্যাচ তৈরির কাজ শুরু করেছে। আগামী মঙ্গলবার নাগাদ উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের জন্য এ নিরাপত্তা প্যাচ প্রকাশ করার কথা রয়েছে।