সর্বশেষ সংবাদ ::
FacebookMySpaceTwitterDiggDeliciousStumbleuponGoogle BookmarksRedditNewsvineTechnoratiLinkedinMixxRSS Feed

ঢাবির অবরুদ্ধ উপাচার্যকে উদ্ধার করল ছাত্রলীগ, সংঘর্ষে আহত ১০

ঢাবির অবরুদ্ধ উপাচার্যকে উদ্ধার করল ছাত্রলীগ, সংঘর্ষে আহত ১০ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামানের কার্যালয়ের সামনে বাম ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। এতে ১০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। তাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

তিন দফা দাবি পূরণ না হওয়ায় মঙ্গলবার দুপুরে নিপীড়নবিরোধী শিক্ষার্থীদের ব্যানারে বাম ছাত্রসংগঠনের নেতাকর্মীরা ঢাবি উপাচার্যের কার্যালয় ঘেরাও করেন।

আন্দোলকারীদের অভিযোগ, বিকেল পৌনে ৪টার দিকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে উপাচার্যকে মুক্ত করে করে নিয়ে যান। এ সময় উপাচার্যের কক্ষের সামনে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা অবস্থান নিলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদের প্রহার করেন। পরে আরো ছাত্রলীগ নেতাকর্মী এসে আন্দোলকারীদের ওপর লোহার রড ও দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালান। এছাড়া ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গাতেও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আন্দোলকারীদের ওপর হামলা চালান বলে অভিযোগ রয়েছে।

রাইজিংবিডির ঢামেক প্রতিবেদক বুলবুল চৌধুরী জানিয়েছেন, সংঘর্ষে ১০ শিক্ষার্থী আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তারা হলেন- রায়হান, উম্মে হাবিবা বেনজীর, আরশাদ, জহর লাল রায়, অপু বিশ্বাস, তাজওয়াক, রাজিব কুমার, জাফরুল নাদিম, লিটন নন্দী, রাসেল আহমেদ।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ঢাবি শাখার সভাপতি ইভা মজুমদার সাংবাদিকদের জানান, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এতে তাদের প্রায় ১৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইন সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেছেন, তারা আন্দোলকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালাননি। উপাচার্যকে উদ্ধারের সময় আন্দোলনকারীরা সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালালে তারা মীমাংসা করার চেষ্টা করেছেন। এতে অনেক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন বলেও দাবি করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, অধিভুক্ত সাত কলেজ বাতিলের দাবিতে চলমান আন্দোলনে ঢাবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা ও যৌন নিপীড়নকারী ছাত্রলীগ নেতাদের বহিষ্কার, প্রশাসনের করা নিপীড়নবিরোধী শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার, দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ প্রক্টরের পদত্যাগ- এই তিন দাবি নিয়ে এখন আন্দোলন করছে বাম ছাত্রসংগঠনগুলো।