ম্যাচ স্বপ্ন জয়ের মিশনে মাঠে নামছে বাংলাদেশ

ম্যাচ স্বপ্ন জয়ের মিশনে মাঠে নামছে বাংলাদেশবিশ্বসেরা আট দল নিয়ে আজ ইংল্যান্ডে পর্দা উঠছে মিনি বিশ্বকাপ খ্যাত আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ২০১৭ আসরের। উদ্বোধনী দিনেই স্বাগতিক ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হচ্ছে লাল-সবুজের প্রতিনিধি বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ সময় আজ বিকেল সাড়ে তিনটায় শুরু হবে মর্যাদার এ লড়াই। লন্ডনের কেনিংটন ওভাল থেকে সেটি সরাসরি সম্প্রচার করবে গাজী টিভি, মাছরাঙ্গা টিভি ও স্টার স্পোর্টস ১।

সাম্প্রতিককালে বদলে যাওয়া বাংলাদেশ আজ মাঠে নামছে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির হট ফেবারিট দল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। র‌্যাঙ্কিং যুদ্ধের পর প্রাক্তন চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তানকে পেছনে ফেলে এবারের আসরে সরাসরি খেলার যোগ্যতা অর্জন করেন সাকিব-তামিম-মুশফিকরা।

২০০৬ আসরে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস ট্রফির বাছাইপর্বে খেলার যোগ্যতা পায় বাংলাদেশ। ওই আসরে বাছাইপর্বে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচে জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে ওটাই বাংলাদেশের একমাত্র জয়। তবে এবার আর বাছাইপর্ব নয়, র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থেকে সরাসরি খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে বাংলাদেশ।

চ্যাম্পিয়নস ট্রফির আগে শ্রীলঙ্কার মতো দলকে পেছনে ফেলে প্রথমবারের মতো ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের ছয়ে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। আসরের শুরুর আগেই এমন ফলাফল আত্মবিশ্বাস যোগান দেবে বাংলাদেশকে। স্বাগতিক ইংল্যান্ড এবং বিপরীতমুখী কন্ডিশন হলেও সাম্প্রতিক ত্রিদেশীয় সিরিজের দারুণ সাফল্যই এগিয়ে রাখবে টাইগারদের।

বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে হালকা করে দেখছে না এবারের আসরের হট ফেবারিট ও আয়োজক দল ইংল্যান্ড। সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বিবেচনায় ইংলিশ মিডিয়াগুলো বাংলাদেশের বিপক্ষে সজাগ থাকার কথা বলছে ইংল্যান্ডকে। ‘দ্য উইক’ নামে একটি ইংলিশ গণমাধ্যম বাংলাদেশকে মন্তব্য করেছে ‘ব্যানানা স্কিন’ বলে। টাইগারদের তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের বিপক্ষে ইংলিশরা পা পিছলাতে পারে বলে মনে করছে গণমাধ্যমটি।

চ্যাম্পিয়নস ট্রফির আগে প্রস্তুতি ম্যাচ না খেললেও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সাম্প্রতিক ২-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জয়ে নিজেদের জানান দিয়েছে ইংল্যান্ড। অন্যদিকে প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে হারলেও সেসব ভুলে নিজেদের সাম্প্রতিক সেরাটা তুলে ধরতে চাইবে মাশরাফির বাংলাদেশ। ইংল্যান্ডে আগে থেকে অনুশীলন ক্যাম্প আর আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের সাফল্য বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাসের পালে হাওয়া দেবে; এমনটাই বিশ্বাস টাইগার ক্রিকেট ভক্তদের।